Fastest Search Bar - Type and see the magic! [wpdreams_ajaxsearchlite]
[hfe_template id='8638']

মক্কা শরীফের ইতিকথা – এ. এন. এম. সিরাজুল ইসলাম ফ্রি পিডিএফ ডাউনলোড | Free PDF Download

মক্কা শরীফের ইতিকথা – এ. এন. এম. সিরাজুল ইসলাম রচিত এই বইটি ফ্রি পিডিএফ ডাউনলোড করুন এখনি! – Download free PDF all books from our PDF Library


Book library

মহান আল্লাহ আমাদের নির্দেশ দিয়েছেন –

পড়ো তোমার প্রভুর নামে, যিনি সৃষ্টি করেছেন। (সূরা আলাকঃ০১)

তাই আমরা আমাদের এই ছোট উদ্যোগটি নিয়েছি সকল প্রকার বই সমূহকে আপনাদের সামনে উপস্থাপন করার। জানি আমরা দুর্বল, তবে আল্লাহ তো সর্বশক্তিমান! তিনি চাইলে কি না পারেন। তার উপর ভরসা করেই এই ওয়েবসাইট চলতে থাকবে ইনশাআল্লাহ! আপনাদের যদি কোনো ইবুক দরকার হয়, কোনো বইয়ের পিডিএফ দরকার হয় যা অনলাইনে এখনো হয়তোবা আসেনি, আমরা ইনশাআল্লাহ সেই বইয়ের পিডিএফ করে যত দ্রুত সম্ভব আপলোড দিব। আল্লাহ আমাদের তৌফিক দান করুন! 

বইটির এক ঝলকঃ

 মাধ্যমে চাষাবাদ করলে যথেষ্ট ফসল উৎপাদন হয়। বর্তমানে মক্কায় কিছু চাষাবাদ

শুরু হয়েছে এবং ভাল ফলন পাওয়া যাচ্ছে। ভূততৃবিদদের গবেষণায় প্রাপ্ত তথ্যে

দেখা যায় ধে, আজকের বিশাল মরু মন্কা পূর্বে ইতিহাসের কোন এক অজ্ঞাত

সময়ে, সবুজ শ্যামল এবং জনবসতিপূর্ণ ছিল । উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে প্রবাহিত

বায়ুর কারণে এখানকার আবহাওয়া আর্দ্র ছিল। মক্কার উঁচু পাহাড়সমূহে বৃষ্টি বর্ষিত

হত এবং নীচু উপত্যকাসমূহ দিয়ে স্রোত প্রবাহিত হত। ফলে এখানকার মাটি সেই

পানিতে সিক্ত হত এবং এখানে ফসলাদি উৎপন্ন হত । আজকে মন্কার মাটির নীচে,

 

অদূরেই পানির যে স্তর রয়েছে তাও সে কথার প্রমাণ বহন করে । রাস্তা মেরামতের

 

জন্য সমান্য খনন কাজ করলেই নীচে পানি আর পানি দেখতে পাওয়া যায় । প্রখ্যাত

এঁতিহাসিক তকীউদ্দিন আলফাসী তার ‘শেফাউল গারাম’ বইতে ৩য় হিজরী

 

শতকের প্রখ্যাত এতিহাসিক আলফাকেহীর বরাত দিয়ে লিখেছেন যে, ইবনে

ইসহাক বলেছেন, হেজায অঞ্চল আল্লাহর নেয়ামতে ভরা এবং সেখানে অধিক

পানির সমারোহ । ভূততৃবিদগণ বলেছেন, ক্রমাৰয়ে প্রাকৃতিক খরার কারণে, শত

শত বছর ধরে, তা কঠোর মরুভূমিতে পরিণত হয়েছে এবং প্রবাহিত নদী-নালা

থেকে বঞ্চিত রয়েছে। জাহেলিয়াতের যুগে যে সকল মরুদ্যানের অস্তিত্বের কথা

বর্ণিত আছে, আজকে তার অধিকাংশই বিলুপ্ত। মদীনার ইহুদীরা, তায়েফের

 

সাকিফ গোত্র এবং মক্কার কোরাইশরা যে সকল মরুদ্যানে চাষাবাদ করত আজ

 

আর সেগুলো নেই। অনেক কুপ শুকিয়ে গেছে এবং মদীনা, তায়েফ ও ওয়াদী

ইবরাহীমে প্রবাহিত বন্যার সংখ্যাও অনেক হ্রাস. পেয়েছে। ভূতত্ববিদদের মতে, ,

মক্কার খরা ও উষ্ণতা বর্তমানের চাইতে ভবিষ্যতে আরো তীব্র হবে এবং এখানকার

ভবিষ্যত নাগরিকেরা এই প্রচণ্ড উষ্টতার শিকার হবে । মক্কা ও আরবন্থীপের বিভিন্ন

শহরে বসবাসকারীরা ভাল করেই জানে যে মক্কার অতীতের পানি ও উর্বরতা

 

বর্তমানের চাইতে পরিমাণগত দিক থেকে অনেক বেশী ছিল। অতীতের

 

ফল-ফলাদি ও সবজির বাগান মন্কার চতুর্দিকে বিরাট এলাকা জুড়ে বিস্তৃত ছিল।

 

দীর্ঘদিনের কঠোর খরা ও রৌদ্রের কারণে আজ তার কোন চিহৃও অবশিষ্ট নেই 6)

 

মরা শরীফ বলতে, কাবা শরীফ যে জায়গায় অবস্থিত সে জায়গাসহ পুরো শহর

 

তথা ‘ছদুদে হারাম’ বা হারাম এলাকার সীমান্তের ভেতরকার সকল এলাকাকে

 

বুঝায় । অবশ্য আজকাল জনসংখ্যা বৃদ্ধির সাথে সাথে হুদুদে হারামের বাইরেও

 

মক্কা শহরের সম্প্রসারণ হয়েছে।▲

 

 

উপরে উল্লেখিত বইটির ফ্রি পিডিএফ ডাউনলোড করুন নিচের ডাইরেক্ট লিঙ্ক থেকে। যদি কোনো সমস্যা হয়, কমেন্ট করে জানাবেন।

লিঙ্কে ক্লিক করার পর ‘Download Anyway’ তে ক্লিক করবেন [যদি আসে, সাধারণত ডাইরেক্ট ডাউনলোড হবে ইনশাআল্লাহ!]। ধন্যবাদ!


download

প্রতিদিন নতুন নতুন বই আপলোড দেয়া হচ্ছে। আপনি যদি বই পিপাসু হয়ে থাকেন এবং আপনার যদি ইসলামিক কিংবা অন্যান্য বই পড়ার আগ্রহ থাকে, তবে আমাদের ইমেইল লিস্টে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন, বই আপনার কাছে পৌছে কড়া নাড়বে। শেয়ার করুন আমাদের সাইটটি সবার সাথে! প্রতিদিন একবার হলেও ঘুরে যাবেন। এর বেশি কিছু চাইনা আপনাদের কাছে! Free PDF Boi Dot Com

আমাদের সাইটের নাম মনে রাখতে চাইলে সেভ করে রাখুন, কিংবা বুকমার্ক করে রাখুন। বই পড়ুন, জ্ঞানের আলো ছড়িয়ে দিন!

You May Also Like

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।