Fastest Search Bar - Type and see the magic!
Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Search in posts
Search in pages
islam shomporke omuslimder shadaron apotti-min

ইসলাম সম্পর্কে অমুসলিমদের আপত্তি সমূহের জবাব – ডা জাকির নায়েক – Dr Zakir Naik – ফ্রি পিডিএফ ডাউনলোড | Free PDF Download

ইসলাম সম্পর্কে অমুসলিমদের আপত্তি সমূহের জবাব – ডা জাকির নায়েক – Dr Zakir Naik – এই বইটি ফ্রি পিডিএফ ডাউনলোড করুন এখনি! – Download free PDF all books from our PDF Library

মহান আল্লাহ আমাদের নির্দেশ দিয়েছেন –

পড়ো তোমার প্রভুর নামে, যিনি সৃষ্টি করেছেন। (সূরা আলাকঃ০১)

তাই আমরা আমাদের এই ছোট উদ্যোগটি নিয়েছি সকল প্রকার বই সমূহকে আপনাদের সামনে উপস্থাপন করার। জানি আমরা দুর্বল, তবে আল্লাহ তো সর্বশক্তিমান! তিনি চাইলে কি না পারেন। তার উপর ভরসা করেই এই ওয়েবসাইট চলতে থাকবে ইনশাআল্লাহ! আপনাদের যদি কোনো ইবুক দরকার হয়, কোনো বইয়ের পিডিএফ দরকার হয় যা অনলাইনে এখনো হয়তোবা আসেনি, আমরা ইনশাআল্লাহ সেই বইয়ের পিডিএফ করে যত দ্রুত সম্ভব আপলোড দিব। আল্লাহ আমাদের তৌফিক দান করুন! 

2020 New PDF Books Download Free Bangla Library Online Database, EPUB, Mobi, Etc. Formats too be added in future!

ইসলাম সম্পর্কে অমুসলিমদের আপত্তি সমূহের জবাব – বইটির এক ঝলকঃ

প্রশ্নঃ ইসলাম কেন একজন পুরুষকে একাধিক স্ত্রী রাখার অনুমতি দেয়? অথবা ইসলামে বহু-খিধাহ অনুখোদিত কেন?

উত্তর $ ক. বহু বিবাহের সংজ্ঞা £ ‘বহু-বিবাহ’ হলো এমন একটি বিবাহ পদ্ধতি যেঘানে একডান ব্যক্তির একাধিক স্ত্রী থাকে । বন্থ-বিৰাহ দুই ধরনের- একজন পুরু একাধিক লারীকে শাদি করে । আর একজন নারী বহু স্বামী বরণ করে। তবে ইসলামে পুরুষের জন্য সীমিত সংখ্যক ‘বহু-বিবাহ’ অনুমোদিভ ‘

অন্য দিকে নারীর জন্য একাধিফ পুরুষ বিবাহ সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ ।

এবার মূল প্রশ্নের আসা ম্বক ৷ কেন একজন পুরন্য একাধিক স্ত্রী রাধার অনুমতি পায়?

শ-পৃথিবীতে আলকুরআনই একমাত ধর্ম প্রহ্থযে বলে “বিবাহ করো মাত্র একজনকে”

পৃথিবীতে কুরআনই একমাত্র ধর্ম-্রন্থ যা এই ঘোষণা দেয়- “বিবাহ করো মাত্র একজনকে” অন্য ধর্ম-এস্থ নেই, খা! পুক্কম্কে নির্দেশি করে একজন স্ত্রীতে সন্তুষ্ট থাকতে । আর অন্ট সব ধর্ম-থন্থ- হোক তা বেদ, রাসায়ন, অহাভারত, গীতা, তালমুদ অথবা বাইধেল। এ সবের মধ্যে স্ত্রীদের সংখ্যার ওপর কোনো নিধিনিবেধ বের বা দেখাতে পারবে কী কেউ? বরং এসব ধর্মন্রন্থ অনুযায়ী একজন পুরুম বিবাহ করতে পারে- যতজন ছার ইচ্ছা । যেমন রামের পিতা রাজা দশরথ একাধিক স্ত্রী গ্রহন করেছেন । ভগবান শ্রী কৃষ্ণের তো অনেক স্ত্রী ছিল! এটা অনেক পরের কথা যে, হিন্দু ধর্ম গুরু এবং শ্ীষ্টান চার্চ সতী সংঘ্যা ‘এক” এ বিধান করে দিয়েছে

বাইবেলে যেহেতু স্ত্রীদের সংখ্যা নিরুপনে কোনো বিধিনিষেধই নেই । সেহেতু অতীতের খ্রীষ্টান পুরুষ্বরা কে ক’জন খুশি স্ত্রী রাখতে পারত ৷ মাত্র কয়েক শতান্দী আগে ভাদের চার্চ বা পুরোহিতরা স্ত্রীর সংখ্যা ‘এক’ এর মধ্যে সীমাবন্ধ করে দিয়েছে। ইহুদীদের ধর্মে বহু বিবাহ অনুমোদিত। তাদের তালমুদিয় বিধান অনুযায়ী আব্রাহামের ইবাহীম (আ)) তিনজন স্ত্রী ছিল এবং সলোমনের (সুলাইমান (আ)-এর ছিল শতাধিক স্ত্রী বহু-ধিবাহের এই প্রথা চলে আসছিল তাদের “রাব্দাঈ” জারসম বিন ইয়াহুদাহ্‌ পর্ন । (৯৬০ থেকে ১০৩০ সি.ই) ভিনিই এর বিরুক্ষে একডি ফরসান জারি. করেন । ইস্দীদের ‘সেফারভিক’ সমাজ যারা প্রধানত মুসলিম দেশগুলোতে বসবাস করে তারা এই প্রথাকে ১৯৫৩ সাল পর্যস্ত বলবহ রাখে । অতঃপর ইসবাটাছোর শ্রধান বাধা একাধিক স্ত্রী বাধার শুপর বিধিনিষেধ শ্ারোপ করে।

একটি লক্ষণীয় বিষয়’

১৯৭৫ সালের আদম-শুমারী অনুযায়ী ভারতীয় হিন্দুরা বছ বিবাহের ক্ষেতে ুনলিমদের চাইতে অগ্রগামী ছিল ।

১৯৭৫ সালে প্রকাশিত কমিটি অফ দি স্ট্যাটাস অফ মেল ইন ইসলাম (ইললাণে মারীর মর্যাদা কমিটি) বইয়ের

উপরে উল্লেখিত বইটির ফ্রি পিডিএফ ডাউনলোড করুন নিচের ডাইরেক্ট লিঙ্ক থেকে। যদি কোনো সমস্যা হয়, কমেন্ট করে জানাবেন।

লিঙ্কে ক্লিক করার পর ডাইরেক্ট ডাউনলোড হবে ইনশাআল্লাহ্‌। ধন্যবাদ! 

প্রতিদিন নতুন নতুন বই আপলোড দেয়া হচ্ছে। আপনি যদি বই পিপাসু হয়ে থাকেন এবং আপনার যদি ইসলামিক কিংবা অন্যান্য বই পড়ার আগ্রহ থাকে, তবে আমাদের ইমেইল লিস্টে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন, বই আপনার কাছে পৌছে কড়া নাড়বে। শেয়ার করুন আমাদের সাইটটি সবার সাথে! প্রতিদিন একবার হলেও ঘুরে যাবেন। এর বেশি কিছু চাইনা আপনাদের কাছে! Free PDF Boi Dot Com

আমাদের সাইটের নাম মনে রাখতে চাইলে সেভ করে রাখুন, কিংবা বুকমার্ক করে রাখুন। বেশি বেশি ভিজিট করুন, বন্ধুদের জানিয়ে দিন।

বই পড়ুন ~ জ্ঞানের আলো ছড়িয়ে দিন!

Leave a Comment

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।